1. mskamal124@gmail.com : thebanglatribune :
  2. wp-configuser@config.com : James Rollner : James Rollner
কোহলিকে এখনই অবসরের পরামর্শ শোয়েব আখতারের - The Bangla Tribune
জুলাই ১৮, ২০২৪ | ১১:৩৯ অপরাহ্ণ
শিরোনাম :

কোহলিকে এখনই অবসরের পরামর্শ শোয়েব আখতারের

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, আগস্ট ১৯, ২০২৩

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শুক্রবার (১৮ আগস্ট) ১৫ বছর পূর্ণ করেছেন বিরাট কোহলি। দীর্ঘ এই যাত্রায় টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে রেকর্ড দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৬টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ভারতীয় সাবেক এই অধিনায়ক। ২০০৮ সালে মাত্র ২০ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকেই ধারাবাহিক পারফর্ম করে নিজেকে তিনি অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। তিন ফরম্যাটে সব মিলিয়ে তার সংগ্রহ ২৫ হাজার ৫৮২ রান। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পঞ্চম সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। তবে হঠাৎ এই দিনই ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ককে সাদা বলের ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে লাল বলের ক্রিকেটে মন দেওয়ার পরামর্শ দিলেন পাকিস্তানের তারকা পেসার শোয়েব আখতার। তার চাওয়া, কোহলির টেস্টজীবন যতটা সম্ভব দীর্ঘায়িত হোক। তার (শোয়েব) মতে, কোহলির উচিত শচীন টেন্ডুলকারের ১০০ শতরানের নজির স্পর্শ করার লক্ষ্য নিয়ে খেলা। তাই বিশ্বকাপের পর কোহলির শুধু টেস্ট ক্রিকেট খেলা উচিত।
শোয়েবের ভাষ্যমতে, শচীনের ১০০টি শতরানের রেকর্ড স্পর্শ করার ক্ষমতা রয়েছে কোহলির। তাকে আরও বছর ছয়েক খেলতে হবে। কোহলিই পারে শচীনের রেকর্ড ভাঙতে। সে জন্য কোহলির উচিত আসন্ন বিশ্বকাপের পর শুধু টেস্ট ক্রিকেটে মন দেওয়া।
অবসরের পরামর্শ দিলেও বরাবরই ব্যাটার কোহলির ভক্ত শোয়েব। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে কোহলির ইনিংসের প্রসঙ্গেও কথা বলেছেন তিনি। ওই ম্যাচে ৫৩ বলে ৮২ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন কোহলি।
পাকিস্তানের প্রাক্তন এই পেসারের মন্তব্য, ওই ম্যাচটা সম্পূর্ণ কোহলির। ক্রিকেট ঈশ্বর নিশ্চয়ই ওর ওই পারফরম্যান্স চেয়েছিলেন। সে সময় কোহলি সেরা ফর্মে ছিল না। ভারতে ওর প্রচুর সমালোচনা হচ্ছিল। সংবাদমাধ্যমের নজরও ওর ওপর ছিল। ওকে নিয়ে নানান রকম লেখা হচ্ছিল। ঈশ্বরই ওকে হয়তো বলেছিলেন—এই মঞ্চটা তোমার। খেলো এবং আবার রাজা হয়ে ওঠো।
শোয়েব আরও যোগ করেন, একবার ভেবে দেখুন, সে দিন বেশ বৃষ্টি হয়েছিল। এক লাখ দর্শক ছিল মাঠে। ১৩০ কোটি ভারতীয় নজর ছিল কোহলির ওপর। পাকিস্তানের ৩০ কোটি মানুষ দেখছিল। গোটা বিশ্বের নজর ছিল ওর ওপর। কোহলির জন্যই যেন মঞ্চ সাজানো হয়েছিল। হ্যারিস রউফকে দুটি বিশাল ছয় মারতেই যেন সব সহজ হয়ে গিয়েছিল। কোহলি আবার নিজের রাজত্ব ফিরে পেয়েছিল। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সেই দিন সব কিছু ওর জন্যই যেন নির্ধারিত ছিল।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020