1. mskamal124@gmail.com : thebanglatribune :
  2. wp-configuser@config.com : James Rollner : James Rollner
বজ্রপাত এক আতঙ্কের নাম - The Bangla Tribune
জুন ১৪, ২০২৪ | ৮:৩৬ অপরাহ্ণ

বজ্রপাত এক আতঙ্কের নাম

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, মে ২৫, ২০২৩

ঝড়বৃষ্টি হলেই গ্রামের মানুষের মধ্যে বজ্রপাতের আতঙ্ক দেখা দেয়। বিশেষ করে যারা মাঠেঘাটে কাজ করেন তাদের মধ্যে শুরু হয়েছে বজ্রপাত নিয়ে আতঙ্ক উদ্বেগ। যখন তখন বজ্রপাত হতে পারে এবং আক্রান্ত হলে মাঠ থেকে ঘরে নাও ফিরতে পারেন এ ভীতিই তাদের মধ্যে কাজ করছে। আবার ঝড়বৃদ্ধির সময় মাঠে যেতেই হয়, ক্ষেতমজুর-কৃষকদের ঘরে বসে থাকার সুযোগ নেই। গত মঙ্গলবার সারাদেশে একদিনে বজ্রপাতে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকালও মৃত্যের ঘটনা ঘটেছে। শুধু তাই নয়, প্রতিদিন বজ্রপাতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। বজ্রপাত থেকে মানুষের জীবন বাঁচাতে সারাদেশে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে এক কোটি তাল গাছের চারা রোপণের পরিকল্পনা করা হয়। সারাদেশে ৩৮ লাখ চারা রোপণ করা হয়েছিল। কিন্তু সে প্রকল্প মাঠে মারা গেছে। রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে তালগাছ মরে গেছে। অথচ আবহাওয়াবিদরা বলছেন, এখন প্রায় ঝড়বৃষ্টি চলতেই থাকবে। ঝড়বৃষ্টি হলেই বজ্রপাতের আশঙ্কা রয়ে যায়।
দেখা যাচ্ছে, এবারও ঝড় বৃষ্টির মৌসুম শুরু হওয়ার সাথে সাথেই শুরু হয়েছে বজ্রপাত। প্রচ- তাপদাহের পর বৃষ্টি প্রশান্তি না এনে বজ্রপাতের আতঙ্ক নিয়ে এসেছে। বৃষ্টি আর ঝড় হলেই বজ্রপাতে মৃত্যু যেন অনিবার্য।
ফিনল্যান্ড ভিত্তিক বজ্রপাত বিষয়ক গবেষণাসংস্থা ভাইসালার তথ্য মতে, বাংলাদেশে বজ্রপাতে যারা মারা যান, তাদের ৭০ ভাগই কৃষক বা যারা খোলা মাঠে কাজ করেন। এছাড়া বাড়ি ফেরার পথে ১৪ শতাংশ এবং গোসল ও মাছ ধরার সময় ১৩ শতাংশের বজ্রপাতের ফলে মৃত্যু হয়েছে। বিশ্লেষকদের মতে, শহরে বেশিরভাগ ভবনে বজ্রনিরোধক দ- থাকায় বজ্রপাতে মৃত্যুতেমন হয়না। কিন্তু গ্রামে তা না থাকা ও বড় গাছপালা কমে গিয়ে খোলা মাঠের কারণে সেখানে বজ্রপাতে মৃত্যুর সংখ্যা বেশি। তাদের কথা দেশের হাওড় এলাকায় বজ্রপাতে মৃত্যুর হার সবচেয়ে বেশি। কারণ সেখানকার বেশিরভাগ ফসলি জমিতে বড় কোনো গাছ নেই। বজ্রপাতের ধর্ম হচ্ছে তা মাটিতে আঘাত হানার আগে সবচেয়ে উঁচু যে জায়গাটিপায় সেখানে গিয়ে পড়ে। বৃক্ষহীন হাওর এলাকায় কৃষকের শরীরই মাটির চেয়ে উঁচু থাকে। তাই বজ্রপাতের সময় মাঠে বা খোলা জায়গায় যেখানে উঁচু কোনো গাছ নেই বা বজ্রনিরোধক ব্যবস্থা নেই সেখানে যারা থাকেন তারা শিকার হন।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্যানুযায়ী প্রতি বছর বাংলাদেশে গড়ে বজ্রপাতে কমবেশি ২৬৫ জনের মৃত্যু হয়। গত এক যুগে তিন হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন বজ্রপাতে। ২০২১ সালে মারা গেছে ৩৬৩ জন, ২০২০ সালে ২৩৬ জন, ২০১৯ সালে ১৬৮ জন, ২০১৮ সালে ৩৫৯ জন, ২০১৭ সালে ৩০১ জন, ২০১৬ সালে ২০৫ জন এবং ২০১৫ সালে ১৬০ মারা গেছেন। প্রতি বছর মার্চ থেকে মে মাসের মধ্যে বজ্রপাতে মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020