1. mskamal124@gmail.com : thebanglatribune :
  2. wp-configuser@config.com : James Rollner : James Rollner
বসুন্ধরা কিংসকে ২-১ গোলে হারিয়ে চমক দেখিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব - The Bangla Tribune
মে ২৭, ২০২৪ | ৬:৪৪ অপরাহ্ণ

বসুন্ধরা কিংসকে ২-১ গোলে হারিয়ে চমক দেখিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, মে ১৩, ২০২৩

sharethis sharing button

ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষোলতম রাউন্ডে এসে প্রথম হারের মুখ দেখলো হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। অন্যদিকে এই রাউন্ডের প্রথম দিন হেরেছে ঢাকা আবাহনী লিমিটেডও এবং পয়েন্ট খুঁইয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র।

গতকাল বিকালে ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভুইয়া স্টেডিয়ামে শিরোপা প্রত্যাশি বসুন্ধরা কিংসকে ২-১ গোলে হারিয়ে চমক দেখিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাব। লিগে এটাই কিংসের প্রথম হার। বিজয়ী দলের হয়ে জোড়া গোল করেন ভেনেজুয়েলার ফরোয়ার্ড অ্যাডওয়ার্ড মরিললো। বসুন্ধরার পক্ষে এক গোল শোধ দেন স্থানীয় ফরোয়ার্ড রাকিব হোসেন।

গত মঙ্গলবার ফেডারেশন কাপের সেমিফাইনালে ঢাকা মোহামেডানের কাছে হেরে লিগের ম্যাচে পুলিশের বিপক্ষে আত্মবিশ্বাসে কিছুটা ঘাটতি ছিল কিংসের। সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছে পুলিশ। ফেডারেশন কাপের ম্যাচে বসুন্ধরার গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার রবসন রবিনহোর অভাবটা স্পষ্ট হয়ে ওঠেছিল। তবে কাল ইনজুরি কাটিয়ে মাঠে ফিরেন এই ফুটবলার। ম্যাচের শুরু থেকেই কৌশলী ফুটবল খেলেন পুলিশের খেলোয়াড়রা। যার ফলও পান তারা। তবে আক্রমণাত্মক ফুটবল উপহার দিয়ে একের পর এক সুযোগ তৈরি করেও সাফল্য পায়নি হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের ৪ মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে কিংসের ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার মিগেল দামাসেনা কর্ণার করলে বক্সে জটলাতে বল পেয়েও কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন তার সতীর্থরা। ১২ মিনিটে রাকিবকে পেছন থেকে ট্যাকল করে হলুদ কার্ড দেখেন পুলিশের মোনায়েম খান রাজু। পরের মিনিটে সুযোগ এসেছিল পুলিশেরও। আম্বুইয়ার ক্রস বক্সে ঠিক মতো ক্লিয়ার করতে পারেননি বসুন্ধরা কিংসের ডিফেন্ডার তপু বর্মণ। পেছনে দাড়ানো এম এস বাবলু অবশ্য প্রত্যাশা করেননি হঠাৎ এভাবে বল পেয়ে যাবেন। যে কারণে বল পেয়ে তড়িঘরি করে শট নেন তিনি। তবে তা হয় লক্ষ্যভ্রষ্ট। এরপরই যেন জ্বলে ওঠেন পুলিশের ফরোয়ার্ডরা। তারা একের পর এক আক্রমণে ব্যতিব্যস্ত করে তোলেন বসুন্ধরার ডিফেন্ডারদের। কিন্তু গোলের দেখা পাচ্ছিলো না বিজয়ীরা। অবশেষে সবাইকে অবাক করে গোল পায় পুলিশ। ম্যাচের ৩২ মিনিটে বসুন্ধরার ডিফেন্ডার তারিক কাজীকে ফাকি দিয়ে ডান প্রান্ত ধরে বক্সে বল নিয়ে ঢুকে পড়েন অ্যাডওয়ার্ড মরিললো। প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের কাটিয়ে দারুণ শটে লক্ষ্যভেদ করেন এই ফুটবলার (১-০)। পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বসুন্ধরা। বিরতি থেকে ফিরে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই সমতায় ফিরতে মরিয়া ছিল তারা। ৪৭ মিনিটেই সমতায় ফেরে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়নরা। এসময় ডান প্রান্ত দিয়ে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারকে পেছনে ফেলে জালে বল ঠেলে দেন রাকিব (১-১)। গোল হজম করেও দমে যায়নি পুলিশ ফুটবল ক্লাব। আক্রমণের ধারা অব্যহত রেখে ফের এগিয়ে যায় তারা। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে একক প্রচেষ্টায় বল নিয়ে কিংসের বক্সে ঢুকে বাঁ পায়ের শটে নিজের এবং দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন সেই অ্যাডওয়ার্ড (২-১)। শেষ পর্যন্ত তার এ গোলেই প্রথম হারের স্বাদ নিয়ে মাঠ ছাড়ে বসুন্ধরা কিংস। ম্যাচ জিতে ১৫ খেলায় পাঁচটি করে জয়, ড্র ও হারে ২০ পয়েন্ট পেয়ে তালিকার পঞ্চম স্থানে উঠলো পুলিশ। সমান ম্যাচে ১৩ জয় এবং একটি করে ড্র ও হারে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে বসুন্ধরা।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2020